ভেজিটেবল

ভেজিটেবল

(Showing 1 – 12 products of 16 products)

Show:

কচু ৫০০ গ্ৰাম

ডেসক্রিপশন:

ইলিশ মাছ দিয়ে আলু কচুর ভাঙা(ilish mach diye alu kochur bhanga recipe)

উপকরণ:

  1. ২৫০ গ্রাম কচু
  2. ২টো আলু
  3. ২০০গ্রাম ইলিশ মাছ এর মাথা ও মাছ
  4. পরিমাণ মত তেল
  5. পরিমাণ মত লবণ
  6. পরিমাণ মত হলুদ গুঁড়ো
  7. ১চা চামচ জিরে গুঁড়ো
  8. ৪টে কাঁচা লঙ্কা

প্রস্তুত প্রণালীঃ

  1. মাছের মাথা ও দুপিচ মাছ আমি ধুয়ে লবণ হলুদ মাখিয়ে রেখেছি

  2. আলু ও কচু সেদ্দ করে নিয়েছি এবং.. ছারিয়ে নিয়েছি

  3. কড়াইতে তেল গরম করে মাছ ও মাথা ভেজে নিতে হবে.. ওই তেল এ আলু কচু দিয়ে একে একে লবণ হলুদ কাচা লংকা চিরে জিরে গুড়ো দিয়ে নারিয়ে নিয়ে মাচের মাথা দিয়ে সামান্য জল দিয়ে ঢেকে দিতে হবে

  4. ৫মিনিট পরে ঢাকা খুলে মাখা মাখা করে নামিয়ে ওপর দিয়ে কাচা তেল ছড়িয়ে দিয়েছি

    kochu

কচুর লতি ১ আটি

ডেসক্রিপশন:

চিংড়ি মাছ দিয়ে কচুর লতি (chingri mach diye kochur loti recipe)

উপকরণ:

  1. ৩০০ গ্রাম কচুর লতি
  2. ১০০ গ্রাম চিংড়ি
  3. ১ কাপ নারকেল কোরানো
  4. ১ কাপ ছোলা
  5. ২ টো কাঁচা লঙ্কা
  6. ১ টা পিঁয়াজ
  7. ২ টো তেজপাতা
  8. ১ চা চামচ গোটা জিরে
  9. ১ চা চামচ হলুদ গুঁড়া
  10. ১ চা চামচ জিরে গুঁড়ো
  11. ১ চা চামচ ধনে গুঁড়া
  12. স্বাদ মতন নুন
  13. ১ চা চামচ চিনি
  14. ২ চা চামচ সরষে তেল
  15. ২ চা চামচ ঘি
  16. ১ কাপ জল

প্রস্তুতপ্রণালীঃ

  1. প্রথমে নুন হলুদ আর কাঁচা লঙ্কা দিয়ে পরিষ্কার করে রাখা চিংড়ি মাছ গুলোকে মাখিয়ে রাখুন।

  2. এবার কড়াইতে দু চামচ তেল দিয়ে তেজপাতা ও জিরে ফোরণ দিয়ে, কুচানো পিঁয়াজ মিশিয়ে, চিংড়ি মাছ কে ভেজে দিয়ে কচুর লতি ও এক মুঠো ছোলা সেদ্ধ মিশিয়ে নিন। কড়াইতে দেওয়ার আগে প্রেসার কুকারে কচুর লতি গুলোকে দুটো সিটি দিয়ে সিদ্ধ করে নেবেন।

  3. এবার জিরে গুঁড়ো, ধনে গুঁড়া, হলুদ গুঁড়া, নুন, চিনি দিয়ে ভালো ভাবে মিশিয়ে এক চামচ ঘি দিয়ে নেড়ে চেড়ে রান্না করুন।

  4. ৫ মিনিট চাপা দিয়ে রেখে এক কাপ নারকেল কুচানো মিশিয়ে অল্প জল দিয়ে ঢেকে রেখে দিন। সব ভালো ভাবে সিদ্ধ হয় গেলে এক চামচ ঘি মিশিয়ে নামিয়ে নিন।

কলমি শাক ১ আটি

ডেসক্রিপশন:

কলমি শাকের চচ্চড়ি

# সবুজ শাক সবজির রেসিপি

উপকরণ

  1. ১ আঁটি কলমি শাক
  2. ১ টি মাঝারি মাপের আলু
  3. ২ টেবিল চামচ কালো সর্ষে বাটা
  4. ৫ টি কাঁচা লঙ্কা বাটা
  5. ১ টি শুকনো লঙ্কা ফোঁড়ন
  6. ১/২ চা চামচ পাঁচফোড়ন
  7. ১/২ কাপ সর্ষের তেল
  8. ১০ কোয়া রসুন থেঁতো
  9. ১/২ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো
  10. স্বাদ মতো নুন
  11. ১ চিমটি চিনি (না দিলেও চলে)

ধাপ

  1. শাক বেচে লম্বা লম্বা করে কেটে নিলাম আলুর খোসা ছাড়িয়ে লম্বা লম্বা করে কেটে

    কলমি শাকের চচ্চড়ি রেসিপি ধাপ - 1 ছবি
  2. সর্ষে কাঁচা লঙ্কা বেটে নিলাম

  3. রসুনের খোসা ছাড়িয়ে নিলাম

  4. কড়াইতে তেল গরম করে পাঁচফোড়ন শুকনো লঙ্কা ও রসুন থেঁতো করে ফোড়ন দিলাম

    কলমি শাকের চচ্চড়ি রেসিপি ধাপ - 4 ছবি
  5. ফোড়নের ওপর শাক ও আলু গুলো দিয়ে দিলাম নেড়ে চেড়ে নুন ও হলুদ দিয়ে নেড়ে ঢাকা দিয়ে দিলাম দশ মিনিট পর ঢাকা খুলে দেখলাম শাক সিদ্ধ হয়েছে কিনা

    কলমি শাকের চচ্চড়ি রেসিপি ধাপ - 5 ছবি
  6. শাক সিদ্ধ হলে সরষে ও কাঁচা লঙ্কা বাটা ও সামান্য চিনি দিয়ে নেড়ে চেড়ে দিলাম

    কলমি শাকের চচ্চড়ি রেসিপি ধাপ - 6 ছবি
  7. শাক নাড়তে থাকলাম যতক্ষণ না জল শুকিয়ে ভাজা ভাজা হচ্ছে

    কলমি শাকের চচ্চড়ি রেসিপি ধাপ - 7 ছবি
  8. তৈরী আমার কলমি শাকের চচ্চড়ি

    কলমি শাকের চচ্চড়ি রেসিপি ধাপ - 8 ছবি
  9. গরম ভাতের সাথে পরিবেশন করলাম গরম

 

 

 

Water Spinach(kolmi Shak)

কাঁচা পেঁপে ১ কেজি

ডেসক্রিপশন:

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ বাজার লাগবে ডটকম সবসময় ভেঁজালমুক্ত আসল পণ্যটি গ্রাহকের কাছে পৌছে দিতে অঙ্গীকারবদ্ধ। এক্ষেত্রে আমরা দৈনন্দিন কাঁচাবাজারের প্রায় সকল পণ্যই (শাক-সবজি, মাছ-গোশত ইত্যাদি) চাষী/উৎপাদকের নিকট থেকে অথবা বিক্রেতার নিকট থেকে সংগ্রহ করে থাকি। সরাসরি চাষী/উৎপাদকের নিকট থেকে সংগৃহীত পণ্যসমূহের ক্ষেত্রে বাজার লাগবে ডটকম শতভাগ নিশ্চয়তা প্রদান করছে। এছাড়া যে সমস্ত পণ্যসমূহ (প্যাকেটজাত/মোড়কজাত – মুদি, ষ্টেশনারী, কসমেটিকস, টয়লেট্রিজ ইত্যাদি) আমরা সরাসরি প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান (ইউনিলিভার, স্কয়ার কনজ্যুমার, ফ্রেশ, বিডি ফুড, আকিজ গ্রুপ ইত্যাদি) থেকে কালেক্ট করে গ্রাহকের নিকট পৌছে দিয়ে থাকি, সে-সমস্ত পণ্যসমূহের গুণগতমান এবং অরিজিনালিটির ক্ষেত্রে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণে নিয়ন্ত্রক সংস্থার (বিএসটিআই এবং অন্যান্য) সত্যায়ন বিবেচ্য। এক্ষেত্রে বাজার লাগবে ডট কম কোন ধরণের দায়ভার গ্রহণ করবে না। তবে নষ্ট/ক্ষয়ে যাওয়া/পঁচা/ব্যবহার অনুপযোগী অথবা মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য ডেলিভারীর ক্ষেত্রে বাজার লাগবে ডট কম দায়ভার গ্রহণ করবে এবং তা পরিবর্তন অথবা মূল্য ফেরত প্রদানের ব্যবস্থা করবে।

Papaya( kacha pepe)

কাঁচা মরিচ ১ কেজি

ডেসক্রিপশন:

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ বাজার লাগবে ডটকম সবসময় ভেঁজালমুক্ত আসল পণ্যটি গ্রাহকের কাছে পৌছে দিতে অঙ্গীকারবদ্ধ। এক্ষেত্রে আমরা দৈনন্দিন কাঁচাবাজারের প্রায় সকল পণ্যই (শাক-সবজি, মাছ-গোশত ইত্যাদি) চাষী/উৎপাদকের নিকট থেকে অথবা বিক্রেতার নিকট থেকে সংগ্রহ করে থাকি। সরাসরি চাষী/উৎপাদকের নিকট থেকে সংগৃহীত পণ্যসমূহের ক্ষেত্রে বাজার লাগবে ডটকম শতভাগ নিশ্চয়তা প্রদান করছে। এছাড়া যে সমস্ত পণ্যসমূহ (প্যাকেটজাত/মোড়কজাত – মুদি, ষ্টেশনারী, কসমেটিকস, টয়লেট্রিজ ইত্যাদি) আমরা সরাসরি প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান (ইউনিলিভার, স্কয়ার কনজ্যুমার, ফ্রেশ, বিডি ফুড, আকিজ গ্রুপ ইত্যাদি) থেকে কালেক্ট করে গ্রাহকের নিকট পৌছে দিয়ে থাকি, সে-সমস্ত পণ্যসমূহের গুণগতমান এবং অরিজিনালিটির ক্ষেত্রে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণে নিয়ন্ত্রক সংস্থার (বিএসটিআই এবং অন্যান্য) সত্যায়ন বিবেচ্য। এক্ষেত্রে বাজার লাগবে ডটকম কোন ধরণের দায়ভার গ্রহণ করবে না। তবে নষ্ট/ক্ষয়ে যাওয়া/পঁচা/ব্যবহার অনুপযোগী অথবা মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য ডেলিভারীর ক্ষেত্রে বাজার লাগবে ডটকম  লাগবে ডটকম দায়ভার গ্রহণ করবে এবং তা পরিবর্তন অথবা মূল্য ফেরত প্রদানের ব্যবস্থা করবে।

Kacha morich 1kg

চিচিঙ্গা (নেট ওজন পিস ±২০গ্ৰাম) ৫০০ গ্ৰাম

ডেসক্রিপশন:

ডিম-চিচিঙ্গা ভাজি রেসিপি

Chichinga

ডায়মণ্ড আলু ১ কেজি

ডেসক্রিপশন:

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ বাজার লাগবে ডটকম সবসময় ভেঁজালমুক্ত আসল পণ্যটি গ্রাহকের কাছে পৌছে দিতে অঙ্গীকারবদ্ধ। এক্ষেত্রে আমরা দৈনন্দিন কাঁচাবাজারের প্রায় সকল পণ্যই (শাক-সবজি, মাছ-গোশত ইত্যাদি) চাষী/উৎপাদকের নিকট থেকে অথবা বিক্রেতার নিকট থেকে সংগ্রহ করে থাকি। সরাসরি চাষী/উৎপাদকের নিকট থেকে সংগৃহীত পণ্যসমূহের ক্ষেত্রে বাজার লাগবে ডটকম শতভাগ নিশ্চয়তা প্রদান করছে। এছাড়া যে সমস্ত পণ্যসমূহ (প্যাকেটজাত/মোড়কজাত – মুদি, ষ্টেশনারী, কসমেটিকস, টয়লেট্রিজ ইত্যাদি) আমরা সরাসরি প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান (ইউনিলিভার, স্কয়ার কনজ্যুমার, ফ্রেশ, বিডি ফুড, আকিজ গ্রুপ ইত্যাদি) থেকে কালেক্ট করে গ্রাহকের নিকট পৌছে দিয়ে থাকি, সে-সমস্ত পণ্যসমূহের গুণগতমান এবং অরিজিনালিটির ক্ষেত্রে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণে নিয়ন্ত্রক সংস্থার (বিএসটিআই এবং অন্যান্য) সত্যায়ন বিবেচ্য। এক্ষেত্রে বাজার লাগবে ডটকম কোন ধরণের দায়ভার গ্রহণ করবে না। তবে নষ্ট/ক্ষয়ে যাওয়া/পঁচা/ব্যবহার অনুপযোগী অথবা মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য ডেলিভারীর ক্ষেত্রে বাজার লাগবে ডটকম  লাগবে ডটকম দায়ভার গ্রহণ করবে এবং তা পরিবর্তন অথবা মূল্য ফেরত প্রদানের ব্যবস্থা করবে।

Diamond alu 1kg

ঢেঁড়স(ভেন্ডি) ৫০০ গ্ৰাম

ডেসক্রিপশন:

ঢেঁড়সের উপকারিতা ও পুষ্টিগুণ

উপকারিতা ও পুষ্টিগুণে কমতি নেই ঢেঁড়সের। বাংলাদেশে ঢেঁড়স খুব পরিচিত একটি সবজির নাম। ঢেঁড়স গ্রীষ্মকালীন একটি সবজি। ঢেঁড়স ভাজি, ঢেঁড়সের তরকারি প্রায় সকলেরই পছন্দ। এটি অত্যন্ত পুষ্টিকর ও ঔষধিগুণ সম্পন্ন এবং আমাদের শরীরের জন্য অনেক উপকারি।

ঢেঁড়সে রয়েছে সলিউবল ফাইবার পেকটিন যা রক্তের বাজে কোলেস্টেরলকে কমাতে সাহায্য করে। এর মধ্যে থাকা ভিটামিন এ, অ্যান্টি অক্সিডেন্ট রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় ও শ্বাসকষ্ট প্রতিরোধ করে। চলুন আমরা জেনে নেই নানা ধরণের ভিটামিনে ভরপুর ঢেঁড়সের কিছু উপকারিতা ও পুষ্টিগুণ সম্পর্কে।

রক্তস্বল্পতায়ঃ ঢেঁড়সের হিমোগ্লোবিন, আয়রন ও ভিটামিন কে দেহে রক্ত জমাট সমস্যা রোধ করে, দেহে প্রয়োজনীয় লাল প্লেটলেট তৈরি করে এবং দেহের দুর্বলতা রোধ করে থাকে। তাই রক্তশূন্যতার সমস্যায় বেশি করে ঢেঁড়স খাওয়া ভালো।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়ঃ এর মধ্যে রয়েছে উচ্চ পরিমাণ ভিটামিন সি এবং অ্যান্টি অক্সিডেন্ট। এ ছাড়া আরো অন্যান্য প্রয়োজনীয় খনিজ যেমন ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ থাকে যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

ত্বকের উপকারিতায়ঃ ঢেঁড়সের উচ্চমাত্রার অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ক্ষতিকর ফ্রি রেডিকেলসের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ তৈরি করে এবং ত্বকের সুস্বাস্থ্য বজায় রাখে। এটি ত্বকের দ্রুত সেরে ওঠার ক্ষমতা বৃদ্ধি করে, ত্বকের ক্ষত ও ব্রণ প্রতিরোধ করে এবং বলিরেখা দূরে রেখে ত্বককে প্রাণবন্ত রাখে। ঢেঁড়সের ভিটামিন সি শরীরের টিস্যু সুরক্ষিত রেখে ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখতে সাহায্য করে। ঢেঁড়স কোলন ক্যানসারের ঝুঁকি কমায়।

হাড় মজবুত করেঃ ঢেঁড়সের ভিটামিন কে উপাদান দেহের হাড় মজবুত করে।

দৃষ্টিশক্তি ভালো রাখতে সহায়কঃ এতে বিদ্যমান ভিটামিন A, বেটা ক্যারোটিন এবং লিউটিন চোখের Glaucoma এবং চোখের ছানি প্রতিরোধে সহায়ক।

ডায়াবেটিস রোগীর জন্য ঢেঁড়সঃ ঢেঁড়সের মধ্যে থাকা ফাইবার দেহের glucose এর মাত্রা কমিয়ে রাখে। তাই ডায়াবেটিস কমাতে ঢেঁড়স অত্যন্ত উপকারী একটি সবজি।

হজমে সাহায্য করেঃ ঢেঁড়সের উচ্চ পরিমাণ ফাইবার খাদ্য হজমে সাহায্য করে। ঢেঁড়স পেটের অতিরিক্ত গ্যাস, হজমজনিত কারণে পেটে ব্যথা, কোষ্ঠকাঠিন্য ইত্যাদি সমস্যা প্রতিরোধে সহায়ক।

কোলেস্টেরল কমাতে সাহায্য করেঃ এর মধ্যে রয়েছে সলিউবল ফাইবার (আঁশ) পেকটিন যা দেহ থেকে খারাপ কোলেস্টেরল কমাতে সাহায্য করে।

শ্বাসকষ্ট প্রতিরোধে সাহায্য করেঃ এর মধ্যে রয়েছে ভিটামিন সি, অ্যান্টি ইনফ্লামেটোরি এবং অ্যান্টি অক্সিডেন্ট উপাদান।

গর্ভাবস্থায় সুস্থ রাখতেঃ ঢেঁড়সের গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টি উপাদান Vitamin B গর্ভের শিশুর সুস্থ বৃদ্ধি নিশ্চিত করে এবং শিশুর জন্মগত সমস্যা, যেমন- স্পাইনাল বিফিডা (spinal bifida) হওয়ার আশঙ্কা হ্রাস করে। এছাড়া ফলিক অ্যাসিডে সমৃদ্ধ এই সবজি নতুন কোষ উৎপাদন ও তার সুস্থতা বজায় রাখতে সাহায্য করে, যা কিনা সুস্থ গর্ভধারণের জন্য অপরিহার্য। ঢেঁড়সের ফলেট গর্ভপাত প্রতিরোধ করে এবং ভিটামিন সি ভ্রুনের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

Ladies Finger(vandi,Dharos)

ধনে পাতা ১০০ গ্ৰাম

ডেসক্রিপশন:

ধনেপাতার উপকারিতা ও অপকারিতা

শীত পড়তে শুরু করেছে। এরইমধ্যে বাজারে উঠে গেছে ধনেপাতা। অনেকেই তরকারির স্বাদ বাড়াতে ধনেপাতা ব্যবহার করেন। আবার ভর্তায়ও জায়গা করে নেয় এই সুগন্ধি পাতা। এ তো গেল রসনাবিলাসের কথা। কিন্তু জানেন কি, খাবারে স্বাদ বাড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে ধনেপাতার রয়েছে একগুচ্ছ ঔষধি গুণ।

হেমন্তের হিমের পরশের সঙ্গে বাজারে উঁকি মারতে শুরু করেছে শীতের অতিথিরা। ফুলকপি, বাঁধাকপি, কাঁচা তেঁতুল, শিমের সঙ্গে দোকানীর ঝুড়ি উপচে উঠছে টাটকা ধনেপাতায়।

ধনেপাতার মধ্যে রয়েছে বিরল ঔষধি নানা উপাদান যা রক্ত শোধন করে। খাদ্যাভ্যাসের দরুণ আমাদের শরীরে রোজ তিলে তিলে জমা হতে থাকে বেশ কিছু ভারী ধাতু এবং বিষাক্ত দূষণকারী পদার্থ।

 

এর থেকে শরীরে বহু দূরারোগ্য অসুখ যেমন ক্যান্সার, হৃদরোগ, মস্তিষ্কের বিভ্রাট, মানসিক রোগ, কিডনি ও ফুসফুসের অসুখ এবং হাড়ের দুর্বলতা তৈরি হতে পারে। ধনেপাতা রক্তপ্রবাহ থেকে এই সমস্ত ক্ষতিকর উপাদান দূর করে শরীরকে সুস্থ ও সতেজ রাখতে সাহায্য করে।

ধনেপাতায় রয়েছে পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ, লোহা ও ম্যাগনেশিয়ামের মতো বেশ কয়েকটি উপকারী খনিজ। এছাড়া ভিটামিন এ এবং ভিটামিন কে-র জোগান দেয় এই পাতা। শুধু তাই নয়, এই উদ্ভিদ অ্যান্টিসেপ্টিক, অ্যান্টিফাংগাল এবং যে কোনও চুলকানি ও চামড়ার জ্বলনে অব্যর্থ ওষুধ। দিল্লির এইমস-এর গবেষণাগারে রিউম্যাটিক আর্থারাইটিস রোগে আক্রান্ত ইঁদুরের পায়ে ধনেপাতার রস প্রবেশ করালে তার শরীরের জ্বলন ও ফোলা ভাব দূর হতে দেখা গিয়েছে।

সাবধানতা:
ধনেপাতা উপকারী তবে, অতিরিক্ত খাওয়া ঠিক নয়। অতিরিক্ত ধনেপাতা লিভারের কার্যক্ষমতাকে খারাপভাবে প্রভাবিত করে থাকে। এতে থাকা এক ধরনের উদ্ভিজ তেল শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গকে আক্রান্ত করে ফেলে। অতিরিক্ত ধনেপাতা নিম্ন রক্তচাপ সৃষ্টি করে। বিশেষজ্ঞরা উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে এই ধনেপাতা খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। স্বাভাবিকভাবে ধনেপাতা গ্যাস্ট্রোইনটেস্টিনাল বিষয়ক সমস্যা দূর করে থাকে। কিন্তু বেশি পরিমাণে ধনেপাতা সেবন পাকস্থলীতে হজমক্রিয়ায় সমস্যা তৈরি করে থাকে। ধনেপাতা অল্প খেলে পেটের সমস্যা দূর হয় কিন্তু এটি বেশি পরিমাণে খেলে ডায়রিয়া হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। গর্ভকালীন সময়ে অতিরিক্ত ধনেপাতা খাওয়া ভ্রূণের বা বাচ্চার শরীরের জন্য বেশ ক্ষতিকারক।

বিডি-প্রতিদিন/এস আহমেদ

Coriander Leaves (Dhona pata)

পটল ৫০০ গ্ৰাম

ডেসক্রিপশন:

পটলের মুখরোচক ৭ পদের রেসিপি

পটলের মুখরোচক দোপেঁয়াজা

উপকরণ: পটল আধা কেজি,পেঁয়াজ ১ কাপ,কাঁচা মরিচ কুচি স্বাদ অনুযায়ী,লবণ স্বাদ অনুযায়ী,    হলুদ ১/৪ চা চামচ,মরিচের গুঁড়ো ১/৪ চা চামচ (ইচ্ছা) তেল

প্রণালী: পটল ছিলে দুইভাগ করে নিন। পটলের খোসা বটিতে একটু ঘষে নিয়ে অনেকে এটা করতে চান, কিন্তু তাতে মজা হবে না এই রেসিপিতে রান্না করলে।সেটা অন্য খাবার। সেটা রান্নায় অনেক তেলও দিতে হয় যা স্বাস্থ্যকর নয়।পটল ছিলে নেয়াই এই রেসিপিতে জরুরি। মাঝের বীজ রেখে দিবেন, নাহলে পটলের শেপ নষ্ট হয়ে যাবে।প্যানে তেল দিন আপনার রুচি অনুযায়ী। তেল গরম হলে এতে কাঁচা মরিচের ফালি দিয়ে দিন।কাঁচা মরিচ থেকে সুন্দর ঘ্রাণ ছড়ালে দিয়ে দিন পেঁয়াজ ও সামান্য লবণ।পেঁয়াজ একটু চকচকে হলে দিয়ে দিন পটল, হলুদ-মরিচ গুঁড়ো। এবার মাঝারি আঁচে ভাজতে থাকুন।ঢাকনা দেবেন না, এতে পটলের রঙ নষ্ট হয়ে যাবে। কেবল মাঝে মাঝে একটু নেড়ে দিয়ে ভাজলেই হবে। নাড়তে হবে যেন পেঁয়াজ পুড়ে না যায়।কিছুক্ষণ পর দেখবেন পটল সেদ্ধ হয়ে গেছে, পেঁয়াজও ভাজা ভাজা হয়ে গেছে কিন্তু পুড়ে যায়নি। এবার চাইলে একটু ধনে পাতা ছিটিয়ে দিতে পারেন।পরিবেশন করুন গরম গরম। যদিও ঠাণ্ডা হলেও ভালো লাগে। ফ্রিজে রেখেও বেশ কয়েকদিন খাওয়া যায়।

কিমা পটলের রেসিপি 

উপকরণ: পটলঃ ১০-১২ টি,কিমাঃ ১ কাপ,রসুন বাটাঃ ১ চা চামচ,আদা বাটাঃ ১ চা চামচ,       পেঁয়াজ কুচিঃ ১/২ কাপ,হলুদ গুঁড়াঃ ১/২ চা চামচ,মরিচ গুঁড়াঃ ১ চা চামচ,জিরা গুঁড়াঃ ১ চা চামচ, তেলঃ ১ কাপ,লবণঃ স্বাদমতো

প্রণালী: তেল গরম হলে সমস্ত মশলা অল্প অল্প করে দিন।একটু পানি দিয়ে ভালোমতো কষিয়ে কিমা দিন। কিমার পানি শুকিয়ে এলে আরো একটু গরম পানি দিন।কিমা ভাজা ভাজা করে নামান।পটল চেঁছে নিন। ভেতরের শাঁস ফেলে কিমার পুর ভরুন।প্যানে তেল গরম হলে বাকি সব মশলা কষিয়ে পটল দিন। অল্প পানি দিয়ে ঢেকে মাঝারি আঁচে রাঁধুন।মাখা মাখা হলে নামিয়ে পোলাওয়ের সাথে পরিবেশন করুন।

potol

পেঁয়াজ ১ কেজি

ডেসক্রিপশন:

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ বাজার লাগবে ডটকম সবসময় ভেঁজালমুক্ত আসল পণ্যটি গ্রাহকের কাছে পৌছে দিতে অঙ্গীকারবদ্ধ। এক্ষেত্রে আমরা দৈনন্দিন কাঁচাবাজারের প্রায় সকল পণ্যই (শাক-সবজি, মাছ-গোশত ইত্যাদি) চাষী/উৎপাদকের নিকট থেকে অথবা বিক্রেতার নিকট থেকে সংগ্রহ করে থাকি। সরাসরি চাষী/উৎপাদকের নিকট থেকে সংগৃহীত পণ্যসমূহের ক্ষেত্রে বাজার লাগবে ডটকম শতভাগ নিশ্চয়তা প্রদান করছে। এছাড়া যে সমস্ত পণ্যসমূহ (প্যাকেটজাত/মোড়কজাত – মুদি, ষ্টেশনারী, কসমেটিকস, টয়লেট্রিজ ইত্যাদি) আমরা সরাসরি প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান (ইউনিলিভার, স্কয়ার কনজ্যুমার, ফ্রেশ, বিডি ফুড, আকিজ গ্রুপ ইত্যাদি) থেকে কালেক্ট করে গ্রাহকের নিকট পৌছে দিয়ে থাকি, সে-সমস্ত পণ্যসমূহের গুণগতমান এবং অরিজিনালিটির ক্ষেত্রে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণে নিয়ন্ত্রক সংস্থার (বিএসটিআই এবং অন্যান্য) সত্যায়ন বিবেচ্য। এক্ষেত্রে বাজার লাগবে ডটকম কোন ধরণের দায়ভার গ্রহণ করবে না। তবে নষ্ট/ক্ষয়ে যাওয়া/পঁচা/ব্যবহার অনুপযোগী অথবা মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য ডেলিভারীর ক্ষেত্রে বাজার লাগবে ডটকম  লাগবে ডটকম দায়ভার গ্রহণ করবে এবং তা পরিবর্তন অথবা মূল্য ফেরত প্রদানের ব্যবস্থা করবে।

Onion(payaj)

বরবটি ১ আটি

ডেসক্রিপশন:
বরবটি ভাজি 
আজ ফ্রেশ বীন দিয়ে করলাম বীন/বরবটি ভাজি , চটজলদি এবং সুস্বাদু একটি রেসিপি আশা করি ভালো লাগবে সবার !
উপকরণ :
বরবটি ২৫০ গ্রাম
কুচো চিংড়ি ২০-২৫ টি
টমেটো ছোট ১ টি
হলুদগুঁড়া ১ /৪ চামচ
রসুন ২ কোয়া
পেঁয়াজ কুচি ১ টি
কাঁচামরিচ ২-৩টি ফালি করা
তেল ২ চামচ
লবন পরিমানমতো
প্রণালী: বীন ধুয়ে ছোট টুকরা করে কেটে নিন, চিংড়ি পরিষ্কার করে ধুয়ে রাখুন, টমেটো ধুয়ে পাতলা স্লাইস করে রাখুন এবং রসুন কোয়া খুলে মিহি কুচি করে নিন । চুলায় একটি ননস্টিক প্যানে তেলটা দিয়ে দিন, তেল গরম হলে রসুন কুচি দিয়ে দিন । রসুন হালকা বাদামী হলে পেঁয়াজকুচি ও অর্ধেক মরিচ ফালি দিয়ে দিন । পেঁয়াজ চকচকে হলে টমেটো দিয়ে নেড়েচেড়ে কুচোচিংড়ি দিয়ে দিতে হবে এ সময় হলুদগুঁড়া টা ও দিয়ে দিতে হবে, চিংড়ি ২-৩ মিনিট নেড়েচেড়ে বরবটির টুকরাগুলো দিয়ে দিন, লবন দিয়ে নেড়েচেড়ে ঢেকে মাঝারি আঁচে ১০-১২ মিনিট রান্না করুন । মাঝে একবার ভাজিটা নেড়ে বাকি কাঁচামরিচটা দিয়ে দিতে হবে, ১০-১২ মিনিট পর বরবটি সিদ্ধ হলে ভাজি নামিয়ে নিন । গরম ভাতের সাথে পরিবেশন করুন

Long Bean(Borboti)

1 2
Scroll To Top
Close
Close
Shop
Filters
0 Wishlist
0 Cart

My Cart

Close

No products in the cart.

Shopping Now